Deshersamoy.com

bangla news 24/7

ঘাটের লোকরা নেতা হলে মাঠতো ফাকা থাকবেই বললেন ব্যারিস্টার সুমন

স্টাফ রিপোর্টার :

করোনাভাইরাসে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের জন্য বরাদ্দকৃত টাকা ও চাল আত্মসাতের ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ফেসবুক সেলিব্রেটি ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইয়েদুল হক সুমন। শনিবার রাতে ফেসবুক লাইভ টকশোতে তিনি বলেন,মাঠে রাজনীতি করে উঠে আসা নেতার সংখ্যা খুবই কম। মাঠে শ্রম যদি এদেশে নেতা হওয়া কঠিন। কিন্তু ঘাটে ঘাটে লবিং করে দ্রুত নেতা বনে যান। তাদের কাছে জনগণের আমানতদারী আশা করা যায় না।ব্যারিস্টার সুমন বলেন,‘আমরা করোনার আগেই বলতাম নেতাদেরকে নৈতিক হওয়া উচিত। কারণ আপনি অনৈতিক নেতাদের নির্বাচিত করবেন,ত্রাণের চালের আমানত দাবি করবেন,আড়াই হাজার টাকার আমানতদারী দাবি করবেন এটা কিভাবে হয়।

একইসাথে তো দুইটা দাবি করতে পারেন না। চেয়ারম্যান রা চাল চুরি করে নাকি কিছু কিছু চোরদেরকেই আপনারা চেয়ারম্যান বানিয়েছেন,মেম্বার বানিয়েছেন। সেটা ভেবে দেখতে হবে। আপনি জেনে বুঝে কাদেরকে নেতা বানাইছেন। সংসদে ৮০ শতাংশ এমপি বানাইছেন ব্যবসায়ীদের। ব্যবসায়ীদের মধ্যে অনেক ভাল নেতা আছে। কিন্তু বেশির ব্যবসায়ী যারা নেতা হয়েছেন তারা স্বার্থের বাইরে যাবে না এটাই স্বাভাবিক। যারা মাঠে রাজনীতি করেছে তাদের জন্য সংসদে যাওয়াটাই কঠিন। সাধারণ মানুষের জন্য ঝাঁপিয়ে পড়েছে এরকম নেতা আমাদের দেশে করোনার আগেও কম ছিল। আমাদের তো অধিকাংশ নেতা ছিল ঘাটের নেতা। মাঠের নেতার সংখ্যা খুবই কম।

ঘাটে ঘাটে দৌড়া-দৌড়ি অধিকাংশ নেতা হয়েছে। মাঠে রাজনীতি করে উঠে আসা নেতার সংখ্যা খুবই কম। মাঠে শ্রম যদি এদেশে নেতা হওয়া কঠিন। কিন্তু ঘাটে ঘাটে লবিং করে দ্রুত নেতা বনে যান। করোনাভাইরাসের কারণে সবার চরিত্র মানুষের কাছে ফুটে উঠেছে। ডাক্তারদের ভূমিকা মানুষ দেখছে,রাজনীতিবিদদের ভূমিকা মানুষ লক্ষ্য করছে। যারা নির্বাচনের মাধ্যমে বিভিন্ন কারচুপি করে নেতা হয়েছেন তাদের কর্মকান্ডও মানুষ দেখছে।

(Visited 1 times, 1 visits today)

Leave a Reply

Copyright © 2019-2021 All rights reserved and protected Frontier Theme
%d bloggers like this: