শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ১০:১৪ পূর্বাহ্ন

চুরির অপবাদ দিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন, আটক ১

  • প্রকাশের সময়: শনিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৪১ দেখেছেন
চুরির অপবাদ দিয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন, আটক ১

ভোলার বোরহানউদ্দিনে নিজ গরু নিয়ে শ্বশুড় বাড়ি যাওয়ার সময় চোর চোর বলে স্থানীয়রা রশি দিয়ে বেধে নির্যাতন করে গুরুত্বর আহত করেছে ইয়ামিন কাজী নামে এক ব্যবসায়ীকে ৷ তবে আহতের বাবা শহীদুল্লাহ কাজি বলেন, কতিপয় ব্যক্তি গরু ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হলে এ ধরণের ঘটনা সৃষ্টি করেন।

আহত ইয়ামিন দেউলা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের কাজি বাড়ীর শহীদুল হক কাজীর ছেলে ৷ সে তালুকদার হাট বাজারের মুদি ব্যবসায়ী ৷

শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) আশংঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসার জন্য আহত ইয়ামিন ইয়ামিনকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে ৷ এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে একটি মামলা দায়েরের পর আলম (৩০) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছ।

এর আগে গত মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) কুতুবা ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডে পদ্মা ব্রিক্সস এর কাছে এঘটনা ঘটে ৷

আহতের বাবা শহিদুল্যাহ কাজী ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) সকালে তার ছেলে ইয়ামিন বাড়ি থেকে অটোরিক্সায় (বোরাক) করে ২টি বাছুর গরু নিয়ে কুতুবা ইউনিয়ের ৪নং ওয়ার্ডে তার শ্বশুর ছিদ্দিক মাতাব্বরের বাড়িতে রওনা হয় ৷ পথিমধ্যে শান্তির হাট বাজারের পূর্বপাশে পদ্মা ব্রিকস্ এর সামনে সকাল ১১টায় পৌছালে স্থানীয় ২০/২৫ জন তাদের অটোরিক্সা (বোরাক) এর গতিরোধ করে ৷ তারা গাড়িতে থাকা বাছুর গরু ২টি নিয়ে যেতে টানা হিচড়া শুরু করেন ৷ একপর্যায় ইয়ামিন গরু দিতে অস্বীকৃতি জানালে, তাকে গরু চোর আখ্যা দেয়। গরুর রশি দিয়ে বেধেঁ অমানবিক নির্যাতন চালায় ৷ পরে, অবস্থা খারাপ দেখে কয়েকজন তাকে বোরহানউদ্দিন সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে৷

ঘটনার একদিন পর স্থানীয় ইউপি সদস্য বিষয়টি মিমাংসার জন্য বুধবার (১৩ জানুয়ারি) দিন ধার্য করেন৷ ওই ইউপি সদস্য বিষয়টার মিমাংসা না করে উল্টাে শহীদুল্লাহ কাজিকে মামলা না করতে হুমকি দেন৷ ওইদিনই সন্ধ্যায় তিনি বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন এবং শুক্রবার রাতে পুলিশ মামলাটি গ্রহণ করে ৷

তিনি আরও জানান, তার ছেলের অবস্থা ক্রমশ খারাপ হওয়ায় শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) সকালে চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকায় প্রেরণ করে ৷ সে এখন বাংলাদেশ মেডিক্যালে আশংঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন আছে ৷

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই বিকাশ জানান, আলম নামে একজনকে গ্রেফতর করা হয়েছে। বাকিদেরকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

বোরহানউদ্দিন থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মাজহারুল আমিন জানান, এ ঘটনায় ৮ জনকে জ্ঞাত এবং ৮/১০ জনকে অজ্ঞাত করে মামলা দায়ের করা হয়েছে ৷ রাতে প্রধান আসামি আলমকে (৩০) গ্রেফতার করা হয়েছে ৷ ভিডিও দেখে সনাক্ত সাপেক্ষে অন্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে ৷

ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির অনন্য সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বসত্ব ® Deshersamoy.com কর্তৃক সংরক্ষিত।
Design & Developed By BlogTheme.Com