স্টাফ রিপোর্টার :   কুমিল্লা উপজেলা দেবিদ্বার দক্ষিণ গুনাইঘরের মাশিকাড়া গ্রামের মোকবল হোসেনের ছেলে ফয়সালের সাথে ময়মনসিং জেলার হালুয়াঘাট উপজেলা জয়মকুড়া গ্রামের শ্যামল তজু মেয়ে নিপা তজু সাথে ঢাকায় পরিচয় দুই বছর যাবত প্রেমের আবদ্ধ হয় গত ১০- ২ -২০ -তারিখে কুমিল্লা

এডভোকেট হারুনুর রশিদ মাধ্যমে নোটারি করে নিপা নাম বাদ দিয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস নাম পরিবর্তন করা হয়েছে।

আজ ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাকিমের মাশিকাড়া গ্রামের বাড়িতে সকলের উপস্থিতিতে হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে।

মুসলিম রীতি অনুযায়ী বিয়ের পিঁড়িতে বসলেন। হিন্দু ধর্মের মেয়ে নিপা তজু। এই কার্যক্রম দেখে খুশি মাশিকাড়া গ্রামবাসী,তাই মেয়েকে নিজের বোন হিসাবে গ্রহণ করে করছেন মাশিকাড়া গ্রামবাসী। এসময় উপস্থিত ছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাকিম খান। এডভোকেট হারুনুর রশিদ পিপি ময়মনসিং থেকে আসা মেয়ের বাবা মা উপস্থিত ছিলেন।

পড়ে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাকিম খান নিজে দায়িত্ব নিয়ে। মেয়ে ও ছেলের সম্মতি ক্রমে চার লক্ষ টাকা কাবিন। এক লক্ষ টাকা উসুল করে বিয়ের কার্যক্রম শেষ করে দেন। ইউপি চেয়ারম্যান

এই বিষয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাকিম খান জানান। ময়মনসিংহ হিন্দু ধর্মের মেয়ে ও দেবিদ্বার উপজেলার রাসেলের সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ প্রেমের আবদ্ধ ছিল।

তাই মেয়ে এসে আমাকে হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করতে সাহায্যের আবেদন জানান।
তাই আমি মেয়ের পরিবারকে ময়মনসিং জেলা থেকে এনে তাদের সামনে বহুবার জিজ্ঞেস করেছি।
মেয়ের বাবা মার সামনে হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করতে আমাকে সুপারিশ করছে। তাই দুই পরিবারের উপস্থিতিতে কাবিন বিয়ের কাজ সম্পন্ন করে দিয়েছি।
ইনশাআল্লাহ তাদের প্রতি আমি সবসময় খেয়াল রাখব।
তারা যেন আমাদের ইসলামের রীতিনীতি মেনে চলার আহ্বান জানাচ্ছি।