শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ০২:০৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
প্যারেডবিহীন করোনাকালের হ্যালোইন উৎসব ;  তানিজা খানম জেরিন মনে পড়ে ফুলনদেবীর কথা ? “ রুখে দাও ধর্ষণ “ নিউইয়র্ক গভর্নরের সর্বোচ্চ সম্মান পেল বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত সুবর্ণ “কবি সফিক আলম মেহেদী ও সঙ্গীত শিল্পীর শিরিন আক্তার চন্দনার বিয়ে” সকল গৌরবময় ইতিহাসের স্বাক্ষী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় অন্য সবকিছুর মতো মার্কেটিংও অতিক্রম করছে সংকট সন্ধিক্ষণ লালমনিরহাটে ছাত্রী ধর্ষণের দায়ে মামলা লালমনিরহাটে মাটির নিচে দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধ বিমানের ধ্বংসাবশেষের উদ্ধার বোনের বাড়িতে বেড়াতে এসে ১৫ দিন ধরে নিখোঁজ বুড়িচংয়ের মরিয়ম ধর্ষণ প্রতিরোধে মৃত্যুদণ্ড ; অ্যান্টিবায়োটিকটি শক্ত হলেও কাজ হবে কি?
চান্দিনায় আরাফাত হত্যায় আসামীদের জেলহাজতে প্রেরণ; স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী সৎ মায়ের

চান্দিনায় আরাফাত হত্যায় আসামীদের জেলহাজতে প্রেরণ; স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী সৎ মায়ের

চান্দিনায় আরাফাত হত্যায় আসামীদের জেলহাজতে প্রেরণ; স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দী সৎ মায়ের

মো. আবদুল বাতেন : কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার তীরচর গ্রামে আরাফাত হোসাইন (৮) নামে এক শিশুকে গলাটিপে হত্যার দায়ে সৎ মা সুমী আক্তার ও শিশুর বাবা মো. ফরিদ মিয়াকে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়। আরাফাতের মা ফেরদৌসী বেগম বাদি হয়ে সোমবার (১ জুন) চান্দিনা থানায় ওই হত্যা মামলা দায়ের করেন। হত্যার ঘটনার পর ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী নিহতের বাবা ও সৎ মাকে আটক করে চান্দিনা থানা পুলিশের নিকট হস্তান্তর করে।

মঙ্গলবার (২ জুন) কুমিল্লার আদালতে হত্যার কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দেয় শিশুটির সৎ মা সুমী আক্তার। পরে আদালত সৎ মা ও শিশুটির বাবাকে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

চান্দিনা থানার অফিসার ইন-চার্জ মো. আবুল ফয়সল বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন- শিশুটির সৎ মা হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দী দিয়েছে। তবে মামলার আরও তদন্তের স্বার্থে এই মুহূর্তে এর চেয়ে বেশি কিছু বলা সম্ভব নয়।

উল্লেখ্য, চান্দিনা উপজেলার তীরচর গ্রামের আরাফাত হোসাইন (৮) নামে ওই শিশুকে গলাটিপে হত্যা করেছে সৎ মা। মরদেহ গোপন করতে বাড়ির গোয়াল ঘরে খর-কুটু দিয়ে ঢেকে রাখার ১০ ঘন্টা পর নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে নিহতের পিতা ও সৎ মাকে আটক করা হয়।

রবিবার (৩১ মে ) রাত ১১টায় চান্দিনা উপজেলার তীরচর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত শিশু আরাফাত চান্দিনা উপজেলার বাতাঘাসী ইউনিয়নের তীরচর গ্রামের মো. ফরিদ মিয়ার ছেলে। সে তীরচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চান্দিনা থানার এসআই মো. হারুন মিয়া জানান, আদালত আসামী দুইজনকে কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করেন। সম্পত্তির লোভেই শিশুটিকে হত্যা করা হয়েছে বলে আমরা জানতে পেরেছি। ১৬৪ ধারায় দেওয়া জবানবন্দী হাতে পেলে মামলার তদন্ত শেষ করা সম্ভব হবে।

ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বসত্ব ® দেশের সময়.কম কর্তৃক সংরক্ষিত।