বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৭:০১ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
প্যারেডবিহীন করোনাকালের হ্যালোইন উৎসব ;  তানিজা খানম জেরিন মনে পড়ে ফুলনদেবীর কথা ? “ রুখে দাও ধর্ষণ “ নিউইয়র্ক গভর্নরের সর্বোচ্চ সম্মান পেল বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত সুবর্ণ “কবি সফিক আলম মেহেদী ও সঙ্গীত শিল্পীর শিরিন আক্তার চন্দনার বিয়ে” সকল গৌরবময় ইতিহাসের স্বাক্ষী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় অন্য সবকিছুর মতো মার্কেটিংও অতিক্রম করছে সংকট সন্ধিক্ষণ লালমনিরহাটে ছাত্রী ধর্ষণের দায়ে মামলা লালমনিরহাটে মাটির নিচে দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধ বিমানের ধ্বংসাবশেষের উদ্ধার বোনের বাড়িতে বেড়াতে এসে ১৫ দিন ধরে নিখোঁজ বুড়িচংয়ের মরিয়ম ধর্ষণ প্রতিরোধে মৃত্যুদণ্ড ; অ্যান্টিবায়োটিকটি শক্ত হলেও কাজ হবে কি?
শিক্ষার্থীদের প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ ডাকসু

শিক্ষার্থীদের প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ ডাকসু

শিক্ষার্থীদের প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ ডাকসু

শিক্ষার্থীদের প্রত্যাশার বেশিরভাগই পূরণ করতে পারেননি ডাকসু নেতারা। পূরণ হয়নি ইশতেহারও। মেয়াদজুড়েই নানা সময়ে নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে ছিলেন তারা। স্বীকারও করছেন বিদায়ী নেতারা। তারা জানান, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের অসহযোগিতা এবং নিজেদের মধ্যে সমন্বয়হীনতার কারণেই এ অবস্থা হয়েছে।

নানা আন্দোলন, আইনি লড়াই শেষে দীর্ঘ ২৮ বছর পর গত বছরের ১১ মার্চ অনুষ্ঠিত হয় ডাকসু নির্বাচন। এতে ভিপি নির্বাচিত হন নুরুল হক নূর, জিএস গোলাম রাব্বানী এবং এজিএস নির্বাচিত হন সাদ্দাম হোসেন। এই সংসদের মেয়াদ চলতি বছরের ২২ মার্চ এক বছর পূর্ণ হয়। তবে এই সময়ের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত না হওয়ায় মেয়াদ আরও ৯০ দিন বাড়ানো হয়। সেই সময়ও শেষ হয় গতকাল।

এই মেয়াদে কতটুকু কার্যকর ছিল ডাকসু সেই বিষয়ে শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, প্রত্যাশার বেশিরভাগই পূরণ হয়নি। ডাকসু নেতাদের নিজেদের মধ্য কাঁদা ছোড়াছুড়িসহ নানা সমালোচনার মধ্যে কেটেছে মেয়াদ। তবে শিক্ষার্থীদের কথা বলার একটি জায়গা তৈরি হয়েছে।

ডাকসুর বিদায়ী নেতারাও স্বীকার করছেন এ অভিযোগ। তবে উন্নয়ন ফি কমানো,সান্ধ্যকালীন কোর্স জোরেসোরে প্রতিবাদ তোলা, ছাত্রীদের সুবিধার জন্য স্যানিটারি ন্যাপকিন ভেন্ডিং মেশিন চালু করাসহ বেশ কিছু কার্যক্রমও চালিয়েছে তারা।

সেই সাথে গণরুম সমস্যাসহ নানা সমস্যা দূরের উদ্যোগ নিলেও প্রশাসনের অসহযোগিতার কারণে তা বাস্তবায়ন সম্ভব হয় নি বলে অভিযোগ ডাকসু নেতাদের।

বিশ্ববিদ্যালয় খুললে দ্রুত নির্বাচন দেয়ার দাবি জানিয়েছেন বিদায়ী নেতারা। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানায়, গঠনতান্ত্রিক উপায়ে সিদ্ধান্ত হবে।

ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বসত্ব ® দেশের সময়.কম কর্তৃক সংরক্ষিত।