বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:১৪ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বিশ্ব ব্যক্তিগত গাড়িমুক্ত দিবস মানবিক শহর গড়তে প্রয়োজন হাঁটা ও সাইকেলবান্ধব পরিবেশ যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে অনুষ্টিত হল বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ২০২০ “ দে‌বিদ্বার উপ‌জেলা স্টুডেন্টস অ্যা‌সো‌সি‌য়েশন অব তিতুমীর ক‌লেজ (ডুসা‌ট)’র ক‌মি‌টি ঘোষনা মুজিবের বাংলাদেশে মাওলানা আহমদ শফী দ্বীনের জন্য আমৃত্যু কাজ করেছেনঃ এনডিপি অসহনীয় লোডশেডিংয়ে ডেমড়ায় ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ জনজিবন শাহ আহমেদ শফি’র শেষ বিদায় জানাতে হাটহাজারীতে মানুষের ঢল নাসিম-সাহারা খাতুন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের পথে থেকে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রতি সর্বদাই আস্হাশীল ছিলেন-মন্ত্রীবর্গ ও আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ কুমিল্লার বাসের দরজা-জানালা বন্ধ করে তরুণীকে গণধর্ষণ; আটক ২ পলাতক ১ কিশোরগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির “ রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ভবন” নির্মিত হতে যাচ্ছে
চান্দিনায় করোনা আক্রান্ত সিংহভাগ পৌরসভায় রেড জোন ঘোষণার দাবী

চান্দিনায় করোনা আক্রান্ত সিংহভাগ পৌরসভায় রেড জোন ঘোষণার দাবী

চান্দিনায় করোনা আক্রান্ত সিংহভাগ পৌরসভায় রেড জোন ঘোষণার দাবী

মো. আবদুল বাতেন : প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের সংক্রামিত উপজেলার সাথে চান্দিনা উপজেলার নাম যুক্ত হয় ১৪ এপ্রিল।

দেবীদ্বার উপজেলার নবীয়াবাদে নারায়ণগঞ্জ থেকে আসা এক করোনা রোগীর চিকিৎসা কাজে যুক্ত থাকায় সংক্রামিত হয় উপজেলার এতবারপুর গ্রামের এক নারী। তারপর থেকে শুরু হয় চান্দিনায় করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব।
মাত্র দুই মাসের ব্যবধানে উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের মধ্যে ১১টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় ছড়িয়ে পরে করোনা ভাইরাসে সংক্রামিত রোগী। এর মধ্যে সিংহ ভাগই চান্দিনা পৌর এলাকার বাসিন্দা। সংক্রামিত ব্যক্তির পাশাপাশি মৃতের সংখ্যাও এগিয়ে চান্দিনা পৌর এলাকা।
দ্রুত চান্দিনা পৌর এলাকাকে রেড জোন ঘোষণা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী এলাকাবাসীর।
চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়- চান্দিনা উপজেলায় করোনা ভাইরাসের সংক্রামন শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত ১শত ৭৫জন আক্রান্ত হয়। এর মধ্যে শুধুমাত্র চান্দিনা পৌরসভায় ১শত ৭জন।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের তথ্য অনুযায়ী উপজেলা জুড়ে মৃত্যু ১১জন মৃত্যু বরণ করলেও প্রকৃত ভাবে এ উপজেলায় মৃত্যু ঘটেছে ১৩জনের। এর মধ্যে শুধুমাত্র পৌর এলাকায় মৃত্যু ঘটেছে ৬জনের। আর পৌর এলাকার মধ্যে চান্দিনা বাজার, মহারং, হারং এলাকায় এর প্রাদুর্ভাব বেশি।
দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে মাধাইয়া ইউনিয়ন। ওই ইউনিয়নের ১৮জন আক্রান্তের পাশাপাশি ১জন মৃত্যু বরণ করে। কেরনখাল ইউনিয়নে ১০জন করোনায় আক্রান্তের পাশাপাশি মৃত্যু বরণ করেন ২জন, মাইজখার ইউনিয়নে ১৪জন আক্রান্তের সাথে মৃত্যু ৩।
এছাড়া আক্রান্ত হয় দোল্লাই নবাবপুরে ৫জন, গল্লাই ইউনিয়নে ৫জন, বরকরই ইউনিয়নে ৩জন, বাড়েরা ইউনিয়নে ৩জন, জোয়াগ ইউনিয়নে ২জন, মহিচাইল ইউনিয়নে ৪জন, এতবারপুর ইউনিয়নে ১জন, বরকইট ইউনিয়নে ১জন।
চান্দিনা পৌর এলাকার একাধিক সচেতন নাগরিক জানান- যেহেতু করোনা আক্রান্তের দুই তৃতীয়াংশই পৌর এলাকার সেহেতু পৌর এলাকাকে রেড জোন ঘোষণা করে লকডাউন নিশ্চিত করা করা একান্ত জরুরী।
এ ব্যাপারে উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) স্নেহাশীষ দাশ জানান- এখন পর্যন্ত মহানগরী এলাকাগুলোতে ৩টি জোনে ভাগ করে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। উপজেলা পর্যায়ে রেড জোন, ইউলো জোন বা গ্রীণ জোনে ভাগ করার জন্য কোন নির্দেশনা আসেনি। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসন স্যারের সাথে আলোচনা করবো।

ভালো লাগলে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি। সর্বসত্ব ® দেশের সময়.কম কর্তৃক সংরক্ষিত।